শনিবার,

২৫ মে ২০২৪

|

জ্যৈষ্ঠ ১০ ১৪৩১

XFilesBd

শিরোনাম

সাবেক আইজিপি বেনজীরের সম্পদ ক্রোকের নির্দেশ আদালতের হবিগঞ্জের কার ও ট্রাকের সংঘর্ষে নারীসহ নিহত ৫ যুদ্ধ ব্যয়ের অর্থ জলবায়ুর প্রভাব মোকাবেলায় ব্যবহার হলে বিশ্ব রক্ষা পেত: প্রধানমন্ত্রী বিএনপির বিরুদ্ধে কোনো রাজনৈতিক মামলা নেই: প্রধানমন্ত্রী প্রাণি ও মৎস্যসম্পদ উন্নয়নে বেসরকারি খাতকে এগিয়ে আসার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর বিএনপি নেতারা সন্ত্রাসীদের সুরক্ষা দেওয়ার অপচেষ্টা করছে : ওবায়দুল

৩ দিনব্যাপী লালন স্মরণোৎসবের উদ্বোধন কুষ্টিয়ার ছেঁউড়িয়ায়

নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ১০:০৩, ১৮ অক্টোবর ২০২৩

৩ দিনব্যাপী লালন স্মরণোৎসবের উদ্বোধন কুষ্টিয়ার ছেঁউড়িয়ায়

 বাউল সম্রাট ফকির লালন শাহ’র ১৩৩তম তিরোধান দিবস উপলক্ষে আজ জেলার কুমারখালীর ছেঁউড়িয়ার আখড়াবাড়ীতে তিন দিনব্যাপী ঐতিহাসিক লালন স্মরণোৎসবের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করা হয়েছে। 

‘মানুষ ভজলে সোনার মানুষ হবি’ লালন শাহ’র এই আধ্যাত্মিক বাণীর প্রতিপাদ্যে মঙ্গলবার রাত ৯টায় বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ এমপি এই উৎসবের উদ্বোধন করেন। 

এ উপলক্ষে লালন একাডেমির সভাপতি ও কুষ্টিয়ার জেলা প্রশাসক মো. এহেতেশাম রেজার সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন মাহবুব উল আলম হানিফ এমপি। বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, কুষ্টিয়া ১ আসনের সংসদ সদস্য আ ক ম সরওয়ার জাহান বাদশা, কুষ্টিয়ার পুলিশ সুপার এ এইচ এম আবদুর রকিব প্রমুখ। প্রধান আলোচক ছিলেন কুষ্টিয়া ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে সাবেক উপ- উপাচার্য প্রফেসর ড. মো. শাহিনুর রহমান। আলোচনা শেষে মূল মঞ্চে একাডেমির শিল্পীরা লালন ফকিরের আধ্যাত্মিক গান পরিবেশন করেন। 

সাংস্কৃতিক মন্ত্রনালয় ও জেলা প্রশাসনের সহযোগীতায় লালন একাডেমি এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছে। প্রতিবারের মত এবারও আধ্যাত্বিক গুরু ফকির লালনকে স্মরণ ও তার দর্শন পাওয়াসহ অচেনাকে চেনা, জ্ঞাণ সঞ্চয়, আত্মার শুদ্ধি ও মুক্তির লক্ষে দেশ-বিদেশের হাজার হাজার লালন অনুসারী, ভক্ত অনুরাগী আর দর্শনার্থীরা আখড়াবাড়িতে এসে জড়ো হয়েছেন। 

অন্যদিকে, আখড়াবাড়ী চত্বরে কালী নদীর তীরে মাঠে বসেছে বিশাল লালন মেলা। আর এই উৎসবকে নির্বিঘœ করতে সিসি টিভি, ওয়াচ টাওয়ারসহ কয়েকস্তরের নিচ্ছিদ্র নিরাপত্ত্বা ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে প্রশাসন। লালন উৎসব শেষ হবে আগামী বৃস্পতিবার রাতে।

উল্লেখ্য, ১২৯৭ বঙ্গাব্দের পহেলা কার্তিক বাউল সম্রাট ফকির লালন শাহের মৃত্যুর পর থেকে প্রতিবছর এ উৎসব চালিয়ে আসছে তার অনুসারীরা।