সোমবার,

২২ জুলাই ২০২৪

|

শ্রাবণ ৬ ১৪৩১

XFilesBd

শিরোনাম

হত্যাকান্ড, লুটপাট ও সন্ত্রাসী কর্মকান্ডের বিচার হবে নিজেদের রাজাকার বলতে তাদের লজ্জাও করে না : প্রধানমন্ত্রী সাবেক আইজিপি বেনজীরের সম্পদ ক্রোকের নির্দেশ আদালতের হবিগঞ্জের কার ও ট্রাকের সংঘর্ষে নারীসহ নিহত ৫ যুদ্ধ ব্যয়ের অর্থ জলবায়ুর প্রভাব মোকাবেলায় ব্যবহার হলে বিশ্ব রক্ষা পেত: প্রধানমন্ত্রী বিএনপির বিরুদ্ধে কোনো রাজনৈতিক মামলা নেই: প্রধানমন্ত্রী প্রাণি ও মৎস্যসম্পদ উন্নয়নে বেসরকারি খাতকে এগিয়ে আসার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর বিএনপি নেতারা সন্ত্রাসীদের সুরক্ষা দেওয়ার অপচেষ্টা করছে : ওবায়দুল

বিএসএমএমইউয়ে চালু হলো অনলাইন এ্যাপয়েন্টমেন্ট পদ্ধতি

প্রকাশিত: ০৫:৩৯, ২ আগস্ট ২০২৩

বিএসএমএমইউয়ে চালু হলো অনলাইন এ্যাপয়েন্টমেন্ট পদ্ধতি

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ে (বিএসএমএমইউ) বহির্বিভাগে অনলাইন ৪৩টি বিভাগের জন্য এ্যাপয়েন্টমেন্ট পদ্ধতির উদ্বোধন করা হয়েছে। প্রতিদিন ১ হাজার ৬৫০ জন রোগী এই সুবিধা পাবেন। পর্যায়ক্রমে এ সংখ্যা বৃদ্ধি করা হবে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ ডা. মিল্টন হলে প্রধান অতিথি হিসেবে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ডা. মো: শারফুদ্দিন আহমেদ এর উদ্বোধন করেন। 

এর ফলে একজন রোগী বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েব সাইটে http://bsmmu.ac.bd/- গিয়ে অনলাইন এ্যাপয়েন্টমেন্ট ট্যাবে ক্লিক করে তার প্রয়োজনীয় বিভাগে সুবিধাজনক সময়ে এ্যাপয়েন্টমেন্ট নিয়ে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে চিকিৎসক এর পরামর্শ সেবা নিতে পারবেন। পরবর্তীতে অনলাইন পদ্ধতির ধাপে ধাপে বিভিন্ন উন্নয়ন কার্যক্রম সম্পন্ন করা হবে।

এর ফলে রোগীরা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইটে অনলাইন এ্যাপয়েন্টমেন্ট অপশন গিয়ে নিজের নাম, বয়স, চিকিৎসার বিভাগ, মোবাইল নম্বর ও এ্যাপয়েন্টমেন্টের সময় উল্লেখ করে সাবমিট দিতে হবে। এখানে রোগীরা পছন্দমত সময় নিতে পারবেন।

বিএসএমএমইউয় সূত্র জানায়,রোগী দেখাতে এ্যাপয়েন্টমেন্ট নেয়ার সময়গুলো হলো সকাল ৮:৩০ - ০৯:২৯, সকাল ৯:৩০ মি. - ১০:২৯ মি, সকাল ১০:৩০ মি. - ১১:২৯ মি এবং দুপুর ১২:৩০ মি. - ০১:২৯ মিনিট। আয়োজিত অনুষ্ঠানে উপাচার্য বলেন,রোগীদের ভোগান্তি কমাতে এই কার্যক্রম শুরু হওয়ায় সকালে এসে রোগীদের ভীড়ের মধ্যে লাইনে দাঁড়াতে হবে না। রোগী সেবার ক্ষেত্রে সুপার স্পেশালাইজড হাসপাতাল এমন জায়গায় যাবে যে রোগীরা বিদেশে যাবে না, সেই আস্থা আমরা তৈরি করবো। সুপার স্পেশালাইজড হাসপাতালে হেলথ ইনফরমেশন সিস্টেম চালু রয়েছে। এটিও এখানে চালু করা হবে।