বৃহস্পতিবার,

০৯ ডিসেম্বর ২০২১

|

অগ্রাহায়ণ ২৪ ১৪২৮

XFilesBd

শিরোনাম

‘অতি জরুরি’ ভিত্তিতে রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনের দাবি প্রধানমন্ত্রীর দাখিল পরীক্ষা ১৪ নভেম্বর শুরু প্রধানমন্ত্রী ৫০টি মডেল মসজিদ উদ্বোধন করবেন আজ মুম্বাইয়ের ভবনধসে ১১ জনের মৃত্যু; আহত ৭ অবশেষে কারামুক্ত সাংবাদিক রোজিনা পাসপোর্ট জমার শর্তে জামিন পেলেন রোজিনা রোজিনার জামিনে প্রমাণিত হয়েছে আদালত সম্পূর্ণ স্বাধীন : ওবায়দুল কাদের দেশে ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আরও ২৮ জনের মৃত্যু দুর্যোগ ঝুঁকি প্রশমনে জনগণকে বেশি সচেতন হতে হবে : প্রধানমন্ত্রী যুদ্ধবিরতি চুক্তির পর ফিলিস্তিনে বিজয় মিছিল পল্লবীতে খুনের মামলার আসামি মানিক ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত গাজায় যুদ্ধবিরতি মানতে বাধ্য হলো ইসরাইল রোজিনার ন্যায় বিচার নিশ্চিত করা হবে : তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী সাংবাদিকদের ধৈর্য ধরার আহবান ওবায়দুল কাদেরের রোজিনা ইসলামের মামলা ডিবিতে হস্তান্তর সাংবাদিক রোজিনার রিমান্ড নামঞ্জুর শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস কাল লকডাউনের মেয়াদ বাড়ল ২৩ মে পর্যন্ত নিজ নিজ অবস্থানে থেকে ঈদ উদযাপনের আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর খালেদা জিয়ার বিদেশে চিকিৎসার সুযোগ নেই: স্বরাষ্টমন্ত্রী আজ থেকে সড়কে গণপরিবহন চালু শিবচরে বাল্কহেড ও স্পিডবোট সংঘর্ষ, নিহত ১৭ অতিরিক্ত ডিআইজি হলেন হারুন-অর-রশিদ করোনায় দরিদ্রদের মাঝে প্রধানমন্ত্রীর ১০ কোটি টাকা ব্যক্তিগত অনুদান রাজধানীর বিভিন্ন স্থানে মৃদৃ ভূমিকম্প অনুভূত করোনা মোকাবেলায় ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করতে হবে : ওবায়দুল কাদের পুলিশ ৬ ডায়েরি উদ্ধার করেছে মুনিয়ার ফ্ল্যাট থেকে মে মাসেই আসতে পারে রাশিয়ার টিকার ৪০ লাখ ডোজ করোনা মোকাবেলায় বাংলাদেশকে সার্বিক সহযোগিতা দিতে আগ্রহী চীন ‘মামুনুলকে জামিন দিলে আবারও জ্বালাও-পোড়াও হতে পারে’ ২৬ বছরের ইতিহাসে ঢাকায় সর্বোচ্চ তাপমাত্রা আজ চলমান লকডাউন থাকবে আরও ৭ দিন কুয়েতে পাপুলের কারাদণ্ড আরও ৩বছর বাড়লো দোকানপাট-শপিংমল খোলা থাকবে রাত ৯টা পর্যন্ত কওমি মাদ্রাসায় সব ধরনের রাজনীতি নিষিদ্ধ করোনা মোকাবেলায় ৫৭৪ কোটি ৯ লাখ টাকা বরাদ্দ: ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী করোনাকালীন সহায়তা পাবেন দুই হাজার সাংবাদিক ঈদের জামাত বিষয়ে সিদ্ধান্ত ২৭ এপ্রিল স্বাস্থ্যবিধি না মানলে আবারও কঠোর লকডাউন : ওবায়দুল কাদের আগামী মে মাসে ২১ লাখ টিকা পাবে বাংলাদেশ করোনায় একদিনে সর্বোচ্চ ১০২ জন মৃত্যুর রেকর্ড দুর্যোগে ক্ষতিগ্রস্ত ৩৬ লাখ পরিবারকে আর্থিক সহায়তা দেবে প্রধানমন্ত্রী হেফাজতের কেন্দ্রীয় যুগ্ম মহাসচিব মামুনুল হক গ্রেফতার দেশে করোনায় একদিনে সর্বোচ্চ ১০১ জনের মৃত্যু বিশ্বব্যাপী করোনার তাণ্ডব থামছে না শনিবার থেকে ৫টি দেশে প্রবাসীদের জন্য বিশেষ ফ্লাইটে চালু খালেদা জিয়া চিকিৎসা নেবেন বাসায় থেকেই সামুদ্রিক জলসীমায় ৬৫ দিন মাছ ধরার নিষেধাজ্ঞা বাবা-মায়ের কবরের পাশে চিরনিদ্রায় সমাহিত মতিন খসরু খালেদা জিয়াকে ‘হাসপাতালে নেয়া হচ্ছে’ দেশে করোনাভাইরাসে মৃত্যু ১০ হাজার ছাড়িয়েছে চিরায়ত বৈশাখের উৎসবে নেই প্রাণের উন্মাদনা দেশে ৮ দিনের সর্বাত্মক লকডাউন শুরু একুশে টেলিভিশনের একুশতম জন্মদিন আজ করোনা পরিস্থিতিতে বাংলা বর্ষবরণ উদযাপন হবে প্রতীকী তারাবীসহ পাঁচ ওয়াক্ত নামাজে ২০ জন মুসল্লি অংশ নিতে পারবে করোনায় একদিনে সর্বোচ্চ মৃত্যুর রেকর্ড প্রখ্যাত রবীন্দ্রসংগীত শিল্পী মিতা হক আর নেই খালেদা জিয়া করোনা আক্রান্ত : স্বাস্থ্য অধিদফতর চলমান লকডাউনের ধারাবাহিকতা চলবে ১২ ও ১৩ এপ্রিল : ওবায়দুল কাদের করোনায় দেশের ইতিহাসে সর্বোচ্চ ৭৭ জনের মৃত্যু ১৪ এপ্রিল থেকে কঠোর লকডাউনে যাচ্ছে সরকার-জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী করোনায় কর্মহীন মানুষদের জন্য ৫৭২ কোটি টাকা বরাদ্দ মানুষকে বাঁচাতে আরো কঠোর পদক্ষেপ গ্রহণের আভাস প্রধানমন্ত্রীর আগামীকাল ৯-৫টা শপিংমল-দোকান খোলা থাকবে বাংলাদেশকে এক লাখ ডোজ করোনার টিকা উপহার দিলেন ভারতীয় সেনাপ্রধান দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় সর্বোচ্চ মৃত্যুর রেকর্ড টেক্সাসেই দাফন হবে সেই বাংলাদেশি পরিবারের লাশ জনসমাগম এড়িয়ে ভার্চুয়ালি নববর্ষ উদযাপন করতে হবে ভ্যাকসিন নিয়ে স্বাস্থ্যবিধি না মানার কারণে করোনায় আক্রান্ত বুধবার থেকে সিটি করপোরেশন এলাকায় বাস চলবে : ওবায়দুল কাদের করোনা মোকাবেলা করাই সরকারের চ্যালেঞ্জ : সেতুমন্ত্রী করোনায় একদিনে সর্বোচ্চ মৃত্যু ও শনাক্তের রেকর্ড রমজানে অফিস সকাল ৯টা থেকে বিকেল সাড়ে ৩টা এসএসসির ফরম পূরণ স্থগিত লকডাউনের কারণে শান্তি শৃঙ্খলা বজায় রাখা উন্নয়নের পূর্বশর্ত : প্রধানমন্ত্রী করোনায় একদিনে দেশে শনাক্তের রেকর্ড ৭০৮৭, মৃত্যু ৫৩ আগামীকাল থেকে গণপরিবহন বন্ধ : ওবায়দুল কাদের সংসদ সদস্য আসলামুল হক মারা গেছেন এক সপ্তাহের লকডাউনের ঘোষণা দিয়ে প্রজ্ঞাপন জারি জাপানের প্রধানমন্ত্রী সুগা আগামী মাসে যুক্তরাষ্ট্র সফরে যাচ্ছেন সংবিধান অনুযায়ী যথাসময়ে নির্বাচন হবে : ওবায়দুল কাদের নোভাভ্যাক্স ভ্যাকসিন মারাত্মক কোভিডের বিরুদ্ধে অত্যন্ত কার্যকরী দেশের প্রতিটি উপজেলায় বিশেষজ্ঞ চক্ষু চিকিৎসা সেবা পৌঁছে দেয়া হবে : প্রধানমন্ত্রী বিএনপি’র ৭ মার্চ পালনের ঘোষণা রাজনৈতিক ভন্ডামি ছাড়া আর কিছুই নয় : ওবায়দুল কাদের ঐতিহাসিক ৭ মার্চ উপলক্ষে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা নিবেদন আজ ঐতিহাসিক ৭ মার্চ প্রতিবেশী দেশের সমস্যা আলোচনার মাধ্যমে সমাধান করতে হবে-প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে ১০ দিনব্যাপী বিশেষ অনুষ্ঠানের আয়োজন করোনার ভ্যাকসিন নিলেন প্রধানমন্ত্রী বিশ্ববিদ্যালয়ে ক্লাস শুরু ২৪ মে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান কবে থেকে কীভাবে খোলা যায় প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ ঢাবির ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষে ভর্তির আবেদন প্রক্রিয়া শুরু ৮ মার্চ টিকাদান কার্যক্রমে ৪শ’ কোটি মার্কিন ডলার সহযোগিতার অঙ্গীকার বাইডে রমজানে ভোগ্যপণ্যের দাম যৌক্তিক পর্যায়ে রাখার আশ্বাস ব্যবসায়ীদের স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষ্যে ঢাকার আকাশে উড়বে ৮০০ ড্রোন নিউজিল্যান্ড সফরে বাংলাদেশের দল ঘোষণা নোয়াখালির কোম্পানীগঞ্জে কাদের মির্জা-বাদল সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষ মুক্তিযোদ্ধাদের সম্মানিভাতা ২০ হাজার টাকা করার ঘোষণা প্রধানমন্ত্রীর রবির শীর্ষ কর্মকর্তাদের জরুরি তলব বিএসইসির সারাদেশে এ পযর্ন্ত করোনা টিকা নিয়েছেন ১১ লক্ষাধিক মানুষ ইয়েমেনে দেড় কোটি মানুষ খাদ্য সংকটে পড়বে: জাতিসংঘ সশস্ত্র বাহিনীকে বাধা দিলে ২০ বছর পর্যন্ত কারদণ্ড পটিয়ায় দুই পক্ষের সংঘর্ষে কাউন্সিলর প্রার্থীর ভাই নিহত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছুটি বাড়ল ২৮ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত আবারও বাড়বে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ছুটি ঢাকা টেস্টে দ্বিতীয় দিনেই চাপে বাংলাদেশ আল জাজিরার সম্প্রচার বন্ধ হবে হাইকোর্ট নির্দেশ দিলে: তথ্যমন্ত্রী সর্বোচ্চ স্বাস্থ্য সুরক্ষা নিশ্চিত করেই শিক্ষার্থীদের স্কুলে ফেরানো হবে : শিক্ষামন্ত্রী শীতের আবহ আরও সাত দিন থাকতে পারে সারাদেশে এ পর্যন্ত করোনা টিকা নিলেন ৩ লাখ ৩৭ হাজার ৭৬৯ জন মানুষ আদর্শবিহীন রাজনীতি টিকে থাকতে পারে না :প্রধানমন্ত্রী সারাদেশে তৃতীয় দিনে টিকা নিলেন ১ লাখ ৮২ জন যেকোনো সময় খুলবে স্কুল, টিকা নিতে হবে শিক্ষকদের ভিন্ন ইমেজের সিনেমায় তাহসান বিএনপির আন্দোলন হবে কোন বছর, জানতে চান ওবায়দুল কাদের শেখ হাসিনার দূরদর্শিতার কারণেই মাত্র ৫ ডলারে ভ্যাকসিন পাচ্ছেন বাংলাদেশের মানুষ : আইনমন্ত্রী সারাদেশে প্রথম দিনে টিকা নিলেন ৩১ হাজার ১৬০ জন আগামীকাল সারাদেশে টিকা বিতরণ শুরু, এখন পর্যন্ত নিবন্ধন হয়েছে ৩ লাখ ২৮ হাজার আন্তর্জাতিক টেলিভিশন চ্যানেল আল-জাজিরায় প্রচারিত ‘All the Prime Minister’s Men’ শীর্ষক সংবাদের প্রতিবাদলিপি স্বশিক্ষায় শিক্ষিত এক শিল্পীর জীবনকথা মোবাইল অতি-আসক্তি : চক্ষু হাসপাতালে বাড়ছে শিশু রোগী কৃষি ভিত্তিক শিল্প আমরা গড়ে তুলতে চাই-প্রধানমন্ত্রী টিকা বিতরণে এখনও উন্মুক্ত হয়নি মোবাাইল এ্যাপ ২৪ ঘণ্টায় করোনায় ১২ জনের মৃত্যু শিশুর হাতে স্মার্টফোন দেওয়ার পূর্বে করণীয় কি ? রাশিয়ার তৈরি করোনা ভ্যাকসিন ৯২ শতাংশ কার্যকর মিয়ানমারের নতুন করে নিয়োগ পেলো এগারো মন্ত্রী সাকিবের খেলা নিয়ে যা বললেন কোচ শব্দ করে পড়ার অভ্যাস আমাদের ঐতিহ্য : ড. আরেফিন সিদ্দিক চীনে তৈরি হচ্ছে ভুয়া ভ্যাকসিন’,গ্রেফতার ৮০ বাংলাদেশ আশা করছে মিয়ানমারে গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়া সমুন্নত থাকবে মিয়ানমারে সেনাবাহিনীর ক্ষমতা দখল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়া এখন সময়ের দাবি বাংলাদেশের প্রশংসায় জাতিসংঘ মহাসচিবের চিঠি বাংলাদেশের কাছে করোনা টিকা চায় হাঙ্গেরি ও বলিভিয়া তীব্র শীতের কবলে দেশ মিরপুরে বেতন-ভাতা পরিশোধের দাবিতে পোশাক শ্রমিকদের বিক্ষোভ ফলাফলের জন্য শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে জমায়েত নিষিদ্ধ

বিশ্ব টেলিভিশন দিবস: প্রসঙ্গ নবজাগৃতির একুশে 

ড. অখিল পোদ্দার

প্রকাশিত: ০৮:৩২, ২২ নভেম্বর ২০২১

বিশ্ব টেলিভিশন দিবস: প্রসঙ্গ নবজাগৃতির একুশে 

ছবি: এক্সফাইলস

টেলিভিশন হলো তথ্য-বিনোদনের বিস্ময়জাগানিয়া মাধ্যম। যেখানে একইসঙ্গে দেখা যায় ছবি, শোনা যায় শব্দ। আবার কথাও বলতে পারেন সাধারণে-‘টক শো’ কিংবা ‘ফোনো লাইভে।’ বলা যেতেই পারে যে-টেলিভিশনই প্রথম বিশ্বকে ঘরের মধ্যে এনেছিল-১৯২৬ সালে। আর দিনটি ছিল ২১ নভেম্বর। তাই আজ বিশ্ব টেলিভিশন দিবস। 

টিভির আবিষ্কারক জন লোগি বেয়ার্ড। বিজ্ঞানী জন লোগি বেয়ার্ড-এর টেলিভিশন আবিষ্কারের দিনটি ছিলো ২১ নভেম্বর। তাঁর প্রতি শ্রদ্ধা রেখে ১৯৯৬ সালে জাতিসংঘ আয়োজিত ফোরামে ২১ নভেম্বর বিশ্ব টেলিভিশন দিবস পালনের সিদ্ধান্ত হয়েছিল।  
রুশ বংশোদ্ভুত প্রকৌশলী আইজাক শোয়েনবার্গের কৃতিত্বে ১৯৩৬ সালে প্রথম টিভি সম্প্রচার শুরু করে ব্রিটিশ ব্র্রডকাস্টিং করপোরেশন-বিবিসি। টেলিভিশন বাণিজ্যিক ভিত্তিতে চালু হয় ১৯৪০ এ। তার আগে ঘটে যাওয়া প্রথম বিশ্বযুদ্ধে পরিবর্তন এসেছিল মানুষের বহুমাত্রিক মানসিকতায়। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর তাই টেলিভিশনের পরম্পরা উল্লেখযোগ্য হয়ে ওঠে। যদিও বিশ্বজুড়ে  টেলিভিশন গণমাধ্যমের ভূমিকায় উঠে আসে গত শতাব্দীর ৫০ এর দশকে। আর আমাদের দেশে টিভির বিবর্তন আসে ১৯৬৪ সালে। সে বছরের ২৫ ডিসেম্বর সাদা-কালো সম্প্রচার শুরু হয়েছিল। তখন একটা উন্মাদনাও এসেছিল সাংস্কৃতিক জাগরণে। পুরণো যাঁরা আছেন তাঁদের কাছে সেসব দিনের টিভি দেখা কেবলই পারস্পরিক স্মৃতি রোমন্থনে নিষ্ক্রান্ত নয়, পরম আনন্দের আধেয়রূপে দোলা দেয়। 

বাংলাদেশে টেলিভিশনের রঙিন সম্প্রচার শুরু ১৯৮০ সালে। প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে অসহায়ের প্রতিবাদী কণ্ঠস্বর হিসেবে একুশ শতকে গোটাবিশ্বে টেলিভিশনই সবচেয়ে শক্তিশালী মাধ্যম হিসেবে অদ্যবধি ভূমিকা রাখছে। একই পরম্পরায় বাংলাদেশেও হালফিলের গণমাধ্যম ব্যাপক ভূমিকা রেখে চলেছে। বিগত বছরে-বিভিন্ন সময়ে এবং চলমান আবর্তনে বেসরকারি টিভি প্রশংসনীয় হয়েছে জনতার জয় হিসেবে। সম্প্রতি টিভি মালিকেরা মিলে সংগঠন গড়েছেন। এ্যাটকো নামের সংগঠনটিও টিভির ভুত ভবিষ্যত নিয়ে কাজ করছে। সেসব বিবেচনায় ঘুরে দাঁড়ানোর নয়া স্বপ্নও অনেকটা আশাজাগানিয়া। 

উদাহরণ টেনে বলতেই পারি-একুশে টেলিভিশনের সার্বিকতা। এদেশের প্রথম বেসরকারি টেরিস্ট্ররিয়াল টিভি একুশে। হাজারো উৎরাই পেরিয়ে এখনো অবিকল। সার্বজনীন এবং স্বীকৃত গণবান্ধব বিশেষায়িত এই টিভি চ্যানেল। শুদ্ধচিন্তা, মুক্তবুদ্ধি, জাতির জনকের আদর্শ আর মুক্তিযুদ্ধের চেতনা নিয়ে এগিয়ে চলা একুশের মধ্য দিয়ে নবজাগৃতি ঘটেছে বাঙালি সংস্কৃতির। পরিবর্তনে অঙ্গিকারবদ্ধ একুশে টিভি মুক্তচিন্তার খোলা জানালা-জাগোজনতার প্ল্যাটফরম। 

একুশে টিভির শুভযাত্রা ২০০০ সালের ১৪ এপ্রিল। বাঙালিপ্রাণে যেদিন ছিল পহেলা বোশেখের বর্ণিল আমেজ। আর তখনই নতুন শতকের সম্ভাবনার বহুমাত্রিক সূর বেজে ওঠে শুদ্ধ মানুষের বিশুদ্ধ বিবেকে। তথ্যপ্রবাহের অবাধ দুয়ার খোলার নেপথ্যে যিনি ছিলেন তিনি আমাদের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। একুশের পাল তুলে একুশে টিভির উদ্বোধন করেছিলেন তিনি। সেই থেকে সম্ভাবনার অপার স্রোত দোলা দিতে থাকে বাঙালির নবপ্রাণে। জাগে বাংলাদেশ, জাগতে থাকে জনতা। একুশে টিভির মাধ্যমে উঠে আসে আপামর মানুষের অন্তর্লীণ কথা। ধ্বনিত হয় রূপসা থেকে পাথুরিয়া, টেকনাফ হতে তেঁতুলিয়ার সরসকণ্ঠ। একুশের মাধ্যমে বাংলাদেশের গণমাধ্যমে যোগ হয় ভিন্ন মাত্রা।বহুমাত্রিক বিনোদনে প্রধান হয়ে ওঠে হাজার বছরের বাঙালিসংস্কৃতি। মানুষকে মানুষ হিসেবে মূল্যায়নের অভিযাত্রায় একুশে অল্পদিনে হয়ে ওঠে চেতনার অমর একুশ। শুদ্ধতার সে প্রবহমানতা এখনো অবিচল-অব্যাহত। 

রুচিশীল বিনোদন, ধর্মান্ধতার বিরুদ্ধে প্রগতির যাত্রিকতা, যুদ্ধাপরাধি-জঙ্গীদের প্রতিহত করে বহুমাত্রিক অনুষ্ঠানে নিবিষ্ট করতে মানুষের সঙ্গে মানুষের সঙ্গ গড়ে দেয় একুশে টেলিভিশন। একইসঙ্গে সংবাদপ্রচারে আপোষহীনতার নীতিও বজায় রাখে। তাতে যেমন থাকে অনিবার্যতা তেমনি স্বপ্নের দ্বৈরথে এগিয়ে চলে একুশে টিভি। বিএনপি-জামায়াতের শাসনামলে ২০০২ সালের ২৯ শে আগস্ট বন্ধ হয়ে যায় কোটি মানুষের ভালোবাসার একুশে। ২০০৬ সালের ১লা ডিসেম্বর আদালতের রায়ের পর ২০০৭ সালে নতুন শক্তিতে বলিয়ান হয়ে আবারও সম্প্রচারে আসে একুশে টেলিভিশন। সেই থেকে অদ্যবধি দুর্বৃত্তদের ষড়যন্ত্র আর নানান ঘাত-প্রতিঘাত ডিঙিয়ে এগিয়ে চলেছে জনতার একুশে। একুশ মানে মাথা নত না করা আর একুশে টিভি মুক্তচিন্তার খোলা জানালা। দুইয়ের সম্মিলনে একুশে এখনো অবিনশ্বর। 

বাংলাদেশের বেসরকারি টিভি চ্যানেলগুলো নানান ধরণের সমস্যায় আক্রান্ত। বাণিজ্যিক নীতি নির্ধারণ না হওয়ায় বিজ্ঞাপন নিয়ে চলছে কাড়াকাড়ি। নির্দিষ্ট যে বাজার ছিল তাও চলে যাচ্ছে অনলাইন প্ল্যাটফরমে। বর্তমানে ৩০টি স্যাটেলাইট চ্যানেল বিদ্যমান। রয়েছে  ২টি রাষ্ট্রীয় চ্যানেল। আর্থিক দৈন্যদশা বেসরকারি টিভিগুলোর নিত্যসঙ্গী। প্রতিনিয়ত চলছে কর্মীছাঁটাই। মাসের পর মাস বকেয়া পড়ে যাচ্ছে। বেশ ক’টি চ্যানেল তাদের বার্তাকক্ষ বন্ধ করে দিয়েছে। আবার অন-এয়ারের অপেক্ষায় থাকা কিছু চ্যানেলে বার্তাকক্ষই নেই। বেতন অনিয়মিত, নাই ইনক্রিমেন্ট,  নাই বিজ্ঞাপন। নাই ভালো বাণিজ্যিক নীতি। এমনকি এই বাতায়নে ভবিষ্যত দেখার চিন্তাটাও ধুলিস্যাত আপাতত। ভিন্ন জানালায় দেখলে, বহুজনের নিরপেক্ষতা এবং চেতনাও বিশেষভাবে প্রশ্নবিদ্ধ। তারা কেউই ভালো কন্টেন্ট দিতে পারছে না। ব্যাপক অর্থে যদি বলি – নাই ভালো নাগরিক শো, নাই ভাল নাটক, নাই ভালো সিনেমা, নাই ভালো আড্ডা অনুষ্ঠান ৷ চতুর্পাশে নাই,নাই আর নাই। এই ‘নাই’য়ে ভরা চলমানতায় আবার হয়তো কেউ কেউ ঘুরে দাঁড়াবে। টিভি মিডিয়ায় উচ্চারিত হবে মুক্তিযুদ্ধের জয়গান, বাঙালি আবারও সতেজ হবে সম্প্রীতি-মৈত্রী আর সরস মেলবন্ধনে। কারণটা এতোদিন ধোঁয়াশাচ্ছন্ন থাকলেও এখন অনেকটাই প্রকট এবং পরিষ্কার। যে সময়টা আমরা পার করছি তাতে বেশ জোরেশোরেই ভর করেছে মৌলবাদিতা। ধর্মের নামে খুন হচ্ছে মানুষ। পূণ্যের আশায় পোড়ানো হচ্ছে বাড়িঘর। সর্বোপরি হিংসার আগুনে জ্বলছে দেশ, জ্বলছে সংস্কৃতি। এভাবে চলতে থাকলে ভুলুণ্ঠিত হবে স্বাধীনতার চেতনা, ভবিষ্যতের ঐক্য। মানুষ রক্ষায় তাই মানুষের মেলবন্ধন অতিব জরুরী। আর সেই কাজটিই করবে টেলিভিশন তথা সম্প্রচার মাধ্যম। সুতরাং আমরা আশায় বুক বাঁধি, স্বপ্ন দেখি-এবং স্বপ্ন দিয়ে তাড়াতে চাই দু:স্বপ্ন। 

বেসরকারি টিভিগুলোর চারপাশে অনেক ‘নাই’ এর মধ্যে শীঘ্রই আরো ১১টি চ্যানেল সম্প্রচারে আসছে। ফলে বেসরকারি চ্যানেলের সংখ্যা দাঁড়াবে ৪১টিতে। টেলিভিশন মার্কেটের যে অবস্থা তাতে নতুন চ্যানেল ততোধিক সংকট বাড়বে। পুরনো টিভিই যেখানে ধুঁকপুক করছে সেখানে নতুন স্টেশন আদৌ স্বকীয়তা তৈরি করবে কি না তা-ও ভাবার প্রসঙ্গ হতে পারে। 

সুতরাং বিশ্ব টেলিভিশন দিবসে সমসাময়িক সমস্যাগুলো সবিশেষ প্রণিধানযোগ্য। এমনকি বৈশ্বিক গণমাধ্যমেওে এখন খরা চলছে। বিবিসি, সিএনএন থেকে হালের জনপ্রিয় অনেক স্টেশন পুরণো নীতি থেকে সরে এসেছে। ২০২০ সালের জানুয়ারিতে বিবিসিতে কর্মী ছাঁটাইয়ের খবরটি সামনে আসে। ওয়ার্ল্ড সার্ভিস, রেডিও ও বিবিসি লাইভ থেকে প্রায় হাজারখানেক সংবাদকর্মী ছাঁটাইয়ের খবরটি ফাঁস হয় ভিক্টোরিয়া ডার্বিশায়ারের বিবিসি টু অনুষ্ঠানে। আরও কিছু প্রতিষ্ঠানের কর্মী ছাঁটাই ঘটা করে খবর হয়েছে দুনিয়াজুড়ে। তারপরও বলি, দৈনন্দিন খবর জানতে ও মানুষের জীবনযাত্রার মান উন্নয়নে টেলিভিশন যন্ত্রটি বিশ্বব্যাপী এখনও ব্যাপক ভূমিকা রাখছে। কম্পিউটার ও স্মার্টফোন এসে বিনোদন ও খবর পরিবেশনের ক্ষেত্রে টেলিভিশনের জায়গা অনেকখানি দখল করে নিয়েছে।তারপরও আশা দেখি, অনলাইন কোনো ব্যত্যয় ঘটাবে না মূল কনটেন্টের।  

প্রবল প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে অসহায়ের কন্ঠস্বর হিসেবে সারাবিশ্বে টেলিভিশনকেই সবচেয়ে শক্তিশালী মাধ্যম হিসেবে বিবেচিত হয়। একুশ শতকে প্রযুক্তির উৎকর্ষ ও সময়ের দাবিতে বাংলাদেশেও টিভি মাধ্যম ব্যাপক ভূমিকা পালন করছে। প্রতিদিনের খবরাখবর ও মানুষের জীবনযাত্রার মান উন্নয়নে এখনো টেলিভিশনের গুরুত্ব যারপরনাই অপরিসীম।

বাড়িয়ে বলি, টেলিভিশন এখন শুধু ড্রয়িং রুমের বিনোদন নয়।  সোশ্যাল মিডিয়াতেও মানুষ উপভোগ করেন টিভির বিচিত্র কন্টেন্ট। ইউটিউব লাইভ ফিড এখন দর্শকের সবচেয়ে বড় আগ্রহের ব্যাপার। আবার এও ঠিক যে, টিভি মিডিয়ায় যে সংখ্যক দর্শক থিতু হয়েছে তা শুধু নিউজ চ্যানেলের কল্যাণেই। 

চারপাশের উন্নয়ন, সমস্যা আর সম্ভাবনার সাথে গণমানুষের সেতুবন্ধন গড়ে তুলবে টেলিভিশন। সর্বোপরি দর্শকের সঙ্গে টিভি স্টেশনের নৈকট্য বাড়াতে হবে। আমরা স্বপ্ন দিয়ে তাড়াতে চাই দু:স্বপ্ন। বিশ্ব টেলিভিশন দিবসের মর্যাদাপূর্ণ দিনে আমরা বিশ্বাস করতে চাই, টেলিভিশনই হবে গণমানুষের যথার্থ কণ্ঠস্বর। 

(লেখক: ড. অখিল পোদ্দার, একুশে টেলিভিশনের প্রধান বার্তা সম্পাদক)