বুধবার,

১৯ জুন ২০২৪

|

আষাঢ় ৫ ১৪৩১

XFilesBd

শিরোনাম

সাবেক আইজিপি বেনজীরের সম্পদ ক্রোকের নির্দেশ আদালতের হবিগঞ্জের কার ও ট্রাকের সংঘর্ষে নারীসহ নিহত ৫ যুদ্ধ ব্যয়ের অর্থ জলবায়ুর প্রভাব মোকাবেলায় ব্যবহার হলে বিশ্ব রক্ষা পেত: প্রধানমন্ত্রী বিএনপির বিরুদ্ধে কোনো রাজনৈতিক মামলা নেই: প্রধানমন্ত্রী প্রাণি ও মৎস্যসম্পদ উন্নয়নে বেসরকারি খাতকে এগিয়ে আসার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর বিএনপি নেতারা সন্ত্রাসীদের সুরক্ষা দেওয়ার অপচেষ্টা করছে : ওবায়দুল

ঢাকা গুয়াহাটি বিমান চলাচল শুরু হবে শিগগিরই-পররাষ্ট্রমন্ত্রী

ড. অখিল পোদ্দার

প্রকাশিত: ০১:৫৯, ৮ অক্টোবর ২০২৩

ঢাকা গুয়াহাটি বিমান চলাচল শুরু হবে শিগগিরই-পররাষ্ট্রমন্ত্রী

শিক্ষা সংস্কৃতি ও ব্যবসা উন্নয়নের লক্ষ্যে সিলেটে শুরু হওয়া বাংলাদেশ ভারত বন্ধুত্ব সংলাপের দ্বিতীয় দিনে দু দেশের গুরুত্বপূর্ণ ইস্যুগুলো উঠে আসে। যেখানে উভয় দেশের প্রতিনিধিরা পানি বন্টন থেকে শুরু করে সীমান্ত সমস্যা সমাধানে একমত পোষণ করেন। বাংলাদেশ ভারতের শিক্ষা সংস্কৃতির সঙ্গে আরও সুসম্পর্ক তৈরি করতে চায় জানিয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন বলেছেন, তাই খুব দ্রুত ঢাকা-গুয়াহাটি বিমান যোগাযোগ চালু হবে। সিলেটে অনুষ্ঠিত চার দিনব্যাপী ১১তম বাংলাদেশ-ভারত ফ্রেন্ডশিপ সংলাপের দ্বিতীয় দিনে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী এই কথা বলেন।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন- ভারত বাংলাদেশের সংস্কৃতি ও ভাষাগত অনেক বিষয়ে মিল রয়েছে, উভয় দেশের সে সম্পর্ককে আমরা আরও এগিয়ে নিতে চাই। সিলেট মহানগরের গ্র্যান্ড সিলেট হোটেল অ্যান্ড রিসোর্টে ‘বাংলাদেশ-ভারত ফ্রেন্ডশিপ সংলাপের এ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন। এতে সভাপতিত্ব করেন সংস্কৃতি মন্ত্রী কে এম খালিদ এমপি। অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন ভারতের সাবেক এমপি স্বপন দাস গুপ্ত, ভারত ফাউন্ডেশনের সদস্য সুরাইয়া দভাল, ভারতের রাজ্য সভার সদস্য রাজ কুমার রঞ্জন সিং প্রমুখ।

বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক সুদূঢ় করতে এবং উভয় দেশের শিক্ষা, সংস্কৃতি ও ব্যবসা উন্নয়নের স্বার্থে প্রতি বছরের ন্যায় এবারও এই সংলাপ শুরু হয়েছে। সংলাপে বাংলাদেশের পক্ষে ছয়জন মন্ত্রী, ২০ জন সংসদ সদস্যসহ জাতীয় নেতৃবৃন্দ অংশ নিয়েছেন। সংলাপ উপলক্ষে ভারত থেকে ১৪০ জনের প্রতিনিধি দল সিলেটে এসেছেন।

মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল এদেশের শিক্ষা উপমন্ত্রীর সঙ্গে আইটি এক্সপার্ট গড়ার প্রস্তাব দেন যীষ্ণু দেব ভার্মা যিনি ত্রিপুরার সাবেক উপ-মূখমন্ত্রী। বাংলাদেশ ফাউন্ডেশন ফর রিজিওনাল স্টাডিসের চেয়রমান এ এস এম সামছুল আরেফিন ও ইন্ডিয়া ফাউন্ডেশনের সভাপতি অশোক বানসাল ভিন্ন ভিন্ন সেশনে সভাপতিত্ব করেন।অনুষ্ঠানে ভি নিউজের প্রধান সম্পাদক জয়ন্ত আচার্য সাংবাদিকতার পাশাপাশি পেশাজীবীদের সম্প্রীতি বাড়াতে দুদেশের মধ্যে প্রাণযোগযোগ গড়ার প্রস্তাব করেন।ত্রিপুরা, আসাম, গুয়াহাটি, কলকাতা, দিল্লিসহ বিভিন্ন প্রদেশের অন্তত ১২৩ জন ভারতীয় সংলাপে অংশ নেন। যেখানে উভয় দেশের বাণিজ্যিক সম্ভবনা ও করণীয় বিষয়টি তুলে ধরেন ভারতীয় হাইকমিশনার প্রণয় কুমার ভার্মা।

৭ অক্টোবর সমাপনী দিনে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন বৈদেশিক কর্মসংস্থান ও প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রী ইমরান আহমদ এমপি এবং সভাপতিত্ব করবেন শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী এমপি। পরে ৮ অক্টোবর সিলেটের বিভিন্ন দর্শনীয় স্থান ঘুরে দেখবেন দুই দেশের প্রতিনিধিসহ আমন্ত্রিত অতিথিরা।