বুধবার,

১৯ জুন ২০২৪

|

আষাঢ় ৫ ১৪৩১

XFilesBd

শিরোনাম

সাবেক আইজিপি বেনজীরের সম্পদ ক্রোকের নির্দেশ আদালতের হবিগঞ্জের কার ও ট্রাকের সংঘর্ষে নারীসহ নিহত ৫ যুদ্ধ ব্যয়ের অর্থ জলবায়ুর প্রভাব মোকাবেলায় ব্যবহার হলে বিশ্ব রক্ষা পেত: প্রধানমন্ত্রী বিএনপির বিরুদ্ধে কোনো রাজনৈতিক মামলা নেই: প্রধানমন্ত্রী প্রাণি ও মৎস্যসম্পদ উন্নয়নে বেসরকারি খাতকে এগিয়ে আসার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর বিএনপি নেতারা সন্ত্রাসীদের সুরক্ষা দেওয়ার অপচেষ্টা করছে : ওবায়দুল

নিউ ইয়র্ক বাংলা বইমেলায় দশ হাজার নতুন বই

প্রকাশিত: ২১:০৫, ১৫ মে ২০২৪

নিউ ইয়র্ক বাংলা বইমেলায় দশ হাজার নতুন বই

নিউইয়র্ক আন্তর্জাতিক বাংলা বই মেলায় ১০ হাজার নতুন বই নিয়ে উপস্থিত থাকবে অন্তত ৪০ টি প্রকাশনা সংস্থা। ১৪ মে জ্যাকসন হাইটসে এক মতবিনিময় সভায় এ কথা জানিয়েছে আয়োজক সংগঠন মুক্তধারা ফাউন্ডেশন । ২৪ মে শুক্রবার থেকে শুরু হচ্ছে চারদিনব্যাপী ৩৩তম নিউইয়র্ক আন্তর্জাতিক বাংলা বইমেলা। 

বইমেলার আহ্বায়ক লেখক ও সাংবাদিক হাসান ফেরদৌসের সঞ্চালনায় সাংবাদিকসহ অন্তত ষাট জন বাংলা বই প্রেমী উপস্থিত ছিলেন। মতবিনিময় সভায় জানানো হয় জ্যামাইকা পারফর্মিং আর্টস সেন্টারে আয়োজিত এবারের বইমেলা উদ্বোধন করবেন বাংলা একাডেমির মহাপরিচালক কবি মুহাম্মদ নুরুল হুদা। 

বাংলাদেশ, ভারত ও উত্তর আমেরিকার স্বনামধন্য ৪০টি প্রকাশনা প্রতিষ্ঠান অংশ নিচ্ছে এবারের মেলায়। এছাড়া বিভিন্ন দেশ থেকে অসংখ্য পাঠক, লেখক ও শিল্পীর উপস্থিতিতে মুখর হয়ে উঠবে বইমেলা।

এবারের বইমেলায় ভারতের পদ্মশ্রী পুরস্কার বিজয়ী সঙ্গীত শিল্পী রেজওয়ানা চৌধুরী বন্যাসহ  অনেকে সঙ্গীত পরিবেশন করবেন। মেলায় বইয়ের প্রদর্শনী ছাড়াও রয়েছে আলোচনা, সেমিনার, বই পরিচিতি, চলচ্চিত্র প্রদর্শনী, তরুণদের অংশগ্রহণে বিশেষ পর্ব, বিতর্কসহ নানা আয়োজন। চলছে গানের মহড়া । 

সাংবাদিকদের নানান প্রশ্নের উত্তরে বক্তব্য রাখেন আয়োজক প্রতিষ্ঠান মুক্তধারা ফাউন্ডেশনের চেয়ারপার্সন ড. নুরুন নবী, ও কো-চেয়ারপার্সন নিনি ওয়াহিদ। আয়োজকরা জানিয়েছেন এবারই প্রথম বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘর যুক্ত হয়েছে নিউইয়র্ক বইমেলায়। থাকছে মুক্তিযুদ্ধের উপর বিশেষ কয়েকটি পর্ব  অংশগ্রহণকারী প্রকাশকদের মধ্য থেকে সেরা প্রকাশক কে পুরস্কৃত করা হবে। দেয়া হবে সাহিত্যে অবদানের জন্য পুরস্কার ও সম্মাননা। বইমেলার মাধ্যমে যুক্তরাষ্ট্রে ছড়িয়ে পড়বে বাংলা ভাষা ও সংস্কৃতি । প্রবাসে মাথা উঁচু করে দাঁড়াবে বাংলাদেশ। সেই প্রত্যাশা অভিবাসীদের।