বুধবার,

১৯ জুন ২০২৪

|

আষাঢ় ৫ ১৪৩১

XFilesBd

শিরোনাম

সাবেক আইজিপি বেনজীরের সম্পদ ক্রোকের নির্দেশ আদালতের হবিগঞ্জের কার ও ট্রাকের সংঘর্ষে নারীসহ নিহত ৫ যুদ্ধ ব্যয়ের অর্থ জলবায়ুর প্রভাব মোকাবেলায় ব্যবহার হলে বিশ্ব রক্ষা পেত: প্রধানমন্ত্রী বিএনপির বিরুদ্ধে কোনো রাজনৈতিক মামলা নেই: প্রধানমন্ত্রী প্রাণি ও মৎস্যসম্পদ উন্নয়নে বেসরকারি খাতকে এগিয়ে আসার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর বিএনপি নেতারা সন্ত্রাসীদের সুরক্ষা দেওয়ার অপচেষ্টা করছে : ওবায়দুল

জামাতি শক্তিকে নস্যাত করে প্রগতিশীল শক্তিকে রাষ্ট্রক্ষমতায় আনতে হবে। নইলে এদেশ হবে বিরাণভূমি-আইনমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ১০:০৪, ২৫ আগস্ট ২০২৩

জামাতি শক্তিকে নস্যাত করে প্রগতিশীল শক্তিকে রাষ্ট্রক্ষমতায় আনতে হবে। নইলে এদেশ হবে বিরাণভূমি-আইনমন্ত্রী

 আইনমন্ত্রী আনিসুল হক বলেছেন, বাংলাদেশকে ব্যর্থ করার ষড়যন্ত্র ও বঙ্গবন্ধুকে চিরতরে মুছে ফেলার ষড়যন্ত্র এখনো চলছে। ৭৫ এর হত্যাকাণ্ডের নেপথ্যের ষড়যন্ত্রকারীদের সনাক্তে অত্যন্ত ক্ষমতাসম্পন্ন উচ্চপর্যায়ের কমিশন গঠনের আইন প্রস্তুত হয়েছে। এমনকি ড্রাফটও প্রস্তুত। এটি জনগণের কাছে দলিল হিসেবে রেখে যাব। সাম্প্রদায়িক শক্তিকে রুখে দিতে সম্মিলিত প্রতিরোধ গড়ে তোলার আহ্বান জানিয়ে তিনি আগামী জাতীয় নির্বাচনে শেখ হাসিনাকে জয়ী করার দাবি জানান।

 বৃহস্পতিবার রাজধানীর সিরডাপ মিলনায়তনে সম্প্রীতি বাংলাদেশ কর্তৃক আয়োজিত ‘আগস্ট ট্র্যাজেডিঃ জাতীয় ও আন্তর্জাতিক রাজনীতি’ শীর্ষক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি আইনমন্ত্রী এসব বলেন।

 নো মাইনোরিটি  দর্শন নিয়ে পথচলা সম্প্রীতি বাংলাদেশের আহ্বায়ক পীযূষ বন্দ্যোপাধ্যায়ের সভাপতিত্বে ও সদস্য সচিব ডা. মামুন আল মাহতাব স্বপ্নীলের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন আপিল বিভাগের সাবেক বিচারপতি শামসুদ্দিন চৌধুরী মানিক, রাজনৈতিক ও নিরাপত্তা বিশ্লেষণ মেজর জেনারেল মোহম্মদ আলী সিকদার (অব.), সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালের সাবেক পরিচালক ডা. উত্তম বড়ুয়া, বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক চন্দ্রনাথ পোদ্দার, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সেন্টার ফর জেনোসাইড স্টাডিজের পরিচালক অধ্যাপক হাফিজুর রহমান কার্জন, মিডিয়া ব্যক্তিত্ব জয়শ্রী কর জয়া, একুশে টেলিভিশনের প্রধান বার্তা সম্পাদক ডক্টর অখিল পোদ্দার, একুশে টিভির অনুষ্ঠান প্রধান সাইফ ইসলাম, মিডিয়া ব্যক্তিত্ব আফিজুর রহমান, জাতীয় গ্রন্থাগারের পরিচালক মিনার মনসুরসহ অন্যরা। 

 অনুষ্ঠানে পীযূষ বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, ভূরাজনীতিতে এখন ক্রান্তিকাল চলছে। দেশের অভ্যন্তরে অশান্তি সৃষ্টি করতে একটু পক্ষ বরাবরের মতো এবারও সোচ্চার। সম্মিলিতভাবে প্রগতিশীল শক্তিকে সজাগ ও সোচ্চার থাকতে হবে। যাতে মৌলবাদী ও তথাকথিত বুদ্ধিজীবীরা দেশকে অন্ধকারে ঠেলে দিতে না পারে। 

 পীযুষ বন্দ্যোপাধ্যায় আরও বলেন, অল্পদিন পরেই শারদীয় পুজো। প্রত্যেকবারই একটি গোষ্ঠী এ সময়টিকে বেছে নিয়ে হিন্দু সম্প্রদায়কে আঘাত করে। সবাই মিলে ঐক্যবদ্ধভাবে এই অপশক্তিকে নস্যাত করতে হবে। 

 ডা. মামুন আল মাহতাব স্বপ্নীল বলেন, এদেশ সব ধর্মের মানুষের। সবাই এখানে সমান সুযোগ ভোগ করবে। আওয়ামী লীগের সময়ে সেটা সম্ভব হয়েছে সবার মাঝে সম্প্রীতির কারণে। 

 আগস্ট মাসে শাহাদাতবরণকারী বঙ্গবন্ধু পরিবারের সদস্যদের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে বক্তার বলেন, সম্প্রীতি বাংলাদেশ সারাদেশে নেটওয়ার্ক গড়ে তোলার মধ্য দিয়ে দূর করবে অন্যায় অত্যাচার। দূরে ঠেলে দেবে মৌলবাদ।